হ্যাকিং প্রতিরোধ
Tech Knowledge

হ্যাকিং প্রতিরোধে তৈরি করুন স্মার্ট পাসওয়ার্ড নিজেকে রাখুন সুরিক্ষত ।

0

আসসালামু আলাইকুম,

আমরা প্রযুক্তির কারণে দৈন্দদিন জীবনের কাজ-কর্ম করার নতুন এক বেগ পেয়েছি যার মাধ্যমে আমরা ঘরে বসেই অনেক কিছু করতে পারি।প্রযুক্তি যত উন্নত হচ্ছে আমরা ততবেশি অগ্রসর হচ্ছি প্রযুক্তির দিকে এবং আমাদেরও উচিত প্রযুক্তিরর সাথে তাল রেখে চলা ও নিজেদের সুরক্ষা করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রগণ করা।আমরা অনলাইনে বা অফলাইনে জগতে বিভিন্ন ধরণের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা অন্য সেবা গুলো ব্যবহার করে থাকি এবং তার জন্য এসব সাইট বা সার্ভিস গুলোতে অ্যাকাউন্ট করতে আর সেই অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড নির্বাচনে আমরা অনেকেই অবহেলা করি যা কখনই আমার বা আপনার জন্য ভালো না। আমাদের এধরণের অবহেলার জন্য পাসওয়ার্ড হ্যাংক হয়ে যেতে পারে এবং আপনার অনালইনের সব অ্যাকাউন্ট বিপদে পরতে পারে সেটা হতে পারে ফেসবুক,জিমেইল,ইয়াহু,ক্রেডিট কার্ড বা ব্যাংকের পাসওয়ার্ড। আর এইসব প্রতিরোধে আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব “কিভাবে হ্যাকিং প্রতিরোধে স্মার্ট পাসওয়ার্ড তৈরী করার পদ্ধতি এবং করণী বিষয়।”

যেভাবে শক্ত বা মজবুত পাসওয়ার্ড তৈরী করবেনঃ

১. পাসওয়ার্ড তৈরী করার ক্ষেত্রে নিজের নাম, ফোন, নাম্বার, জন্মতারিখ, এক কথাই এমন সব পাসওয়ার্ড দিবেব না যা আপনার ব্যক্তিগত তথ্য কারণ একজন ব্যক্তি সহজেই ধরাণা করতে পারে আপনি এরকম পাসওয়ার্ড দিতে পারেন।

২. পাসওয়ার্ড শুধু নিজের নাম না লিখে সংখ্যা বর্ণ ব্যবহার করুন।

৩ হ্যাকিং প্রতিরোধে স্মাট পাসওয়ার্ড তৈরী করতে স্পেশাল ক্যারেক্টার ব্যবহার করুন যেমনঃ $#@$&! ইত্যাদি।

৪. কখনই শুধু নিজের ফোন নাম্বার পাসওয়ার্ড হিসাবে ব্যবহার করতে যাবেন না।

৫. সবধরণের সংখ্যা, বর্ন,স্পেশাল ক্যারেক্টার ইত্যাদির সমন্বয়ে পাসওয়ার্ড তৈরী করুন।

যেমনঃ $1Example%13@ ইত্যাদি ইত্যাদি।

৬. পাসওয়ার্ড বড় হাতের ও ছোট হাতের অক্ষরের সমন্বয়ে তৈরী করুন।

পাসওয়ার্ড হ্যাকিং প্রতিরোধে করণীয়ঃ

১. প্রতিটি ওয়েব সাইট বা অ্যাপে বা অন্য কোন সার্ভিসে একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা থেকে দূরে থাকুন।কোন ভাবে যদি অসাধু ব্যক্তি আপনার একটি পাসওয়ার্ড পেয়ে যায় তাহলে সে অন্যগুলোর ১২ টা বাজাতে পারে তাই একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করাটা বোকামির হবে।

২. অন্য কারো কম্পিউটার বা ডিভাইসে নিজের অ্যাকাউন্ট লগইন করা থেকে বিরত থাকুন। যদি একান্ত আপনার কারো ব্রাউজারে লগইন করতেই হয় তবে ব্রাউজারে থাকা “New Incognito Tab” নামে অপশন পাবেন এটা থেকে ব্রাউজ করবেন এর ফলে যদি তাড়াহুড় করে যদি লগআউট না করে চলে যান ভয়ের কিছু নাই কারণ এই ট্যাব সবকিছু গোপন অবস্থায়য় থাকে ট্যাব ক্লোজ করে দিলে সব শেষ অটো সব লগআউট হয়ে যাবে।

৩. যেকোন পাবলিক প্লেস এ ওয়াইফাই ব্যবহার করতে সর্তক হোন।

৪. কখনই অন্যের কম্পিউটার আা ডিভাইস থেকে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে যাবেন না এতে যদি আপনি অন্য সাইটে একই পাসওয়ার্ড দিয়ে রাখেন সে সেটা দেখে আপনার ক্ষতি করতে পারে বিশেষ করে সাইবারটেক গুলোতে যেখানে বসে টাকা দিয়ে কম্পিউটার ব্যবহার করেন।

৫. সহজেই আপনার অনলাইন থেকে তথ্য পাওয়া যায় এমন কোন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করবেন না। যেমনঃ নাম্বার,জন্মতারিখ,নাম ইত্যাদি।

৬. আবার হয় কি অনেকেই পাসওয়ার্ড গুলো মনে রাখতে পারে না এজন্য বিশেষ ধরনের পাসওয়ার্ড ম্যানেজার পাওয়া যায় যেগুলো ব্যবহার করে পাসওয়ার্ড লিখে রাখতে পারেন এবং অবশ্যই ঐ পাসওয়ার্ড ম্যানেজারে পাসওয়ার্ড দিবেনন এমন যে না হয় সব পাসওয়ার্ড ঐখানে লিখে রাখলেন সুন্দর করে অ্যাপে ঢুকে কেউ সব দেখে নিল তাই লক করুন।

৭. কেউ যদি আপনাকে কখন কোন লিংক থেকে জিমেইল,ফেসবুক বা অন্য কিছুতে লগইন করতে দেয় তাহলে অবশ্যই এড্রেসবারে খেয়াল করবেন লিংক ঠিক আছে কিনা যদি ঠিক না থাকে তাহলে বুঝবেন এটা ফাঁদ ফিসিং সাইট। যদি ফেসবুক হয় তাহলে দেখবেন facebook dot com আছে কি না। যদি ভুলেও লগইন করেন তাহলে সাথে সাথে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন।

৮. অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখার জন্য “Two Steps Verification” সিস্টেম ব্যবহার করুন যা প্রায়ই সাইটে আছে এটির দ্বারা আপনার নিজের পাসওয়ার্ড কেউ জানলে ও লগইন করতে পারবে না। যখনই কেউ আপনার পাসওয়ার্ড পেয়ে লগইন করতে যাবে তখন পূর্বে যে নাম্বারটা দিয়েছিলেনন সেখানে গোপন কোড যাবে সেটা দিলেই লগইন হবে তাছাড়া না।

৯. নিজের পাসওয়ার্ড শেয়ার করা থেকে সর্বদা দূরে থাকুন।

১০. অন্যন্ত বছরে একবার হলেও পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন।

এছাড়া অনেকভাবে সর্তকতা অবলম্বন করতে পারেন উক্ত পয়েন্ট গুলো পড়ে যা এমনেই আপনার মাথায় চলে আসবে।

আরো পড়ুনঃ

উইন্ডোজ ১০ এ অটো আপডেট বন্ধ করার পদ্ধতি ।

অটো লাইক কি ? ফেসবুকে অটো লাইক নেওয়ার সুবিধা ও অসুবিধা নিয়ে বিস্তারিত জানুন ।

টাইপিং শিখতে চান ? দ্রুত টাইপিং শেখার সবচেয়ে সহজ উপায় । Download Typing Master Pro

বিটকয়েন ওয়ালেট কি ? কিভাবে একটি বিটকয়েন ওয়ালেট অ্যাকাউন্ট খুলবেন ।

Any Desk কি ? যেভাবে অন্যের কম্পিউটার দূর থেকে নিয়ন্ত্রণ করবেন !

টু স্টেপ ভেরিফিকেশন কি ? কিভাবে ফেসবুকে টু স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করবেন ।

#খুব তাড়াতাড়ি “Two Steps Verification” সিস্টেম ও ফিসিং সাইট কি ও তা চেনার উপায় নিয়ে বিস্তারিত আরোও ২টা পোস্টে দেখা হবে

ভিপিএন কি? কেন ভিপিএন ব্যবহার করবেন ?

Facebook Comments

monsterid
নিজের সম্পর্কে তেমন কিছু বলার নাই । আমি প্রতিনিয়ত নতুন কিছু শিখার বা জানার চেষ্টা করি এবং নিজের জানা ও শিখা বিষয় গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করে থাকি এই সাইট টির মাধ্যমে । "Learn And Share Your Knowledge"

ভিপিএন কি? কেন ভিপিএন ব্যবহার করবেন ?

Previous article

ক্রিপ্টো কারেন্সি বা বিটকয়েন কি?  কিভাবে উপার্জন করা যায়  বিস্তারিত জেনে নিন।

Next article

You may also like

Comments

Leave a reply