NanoBlog
বিটকয়েন কি

ক্রিপ্টো কারেন্সি বা বিটকয়েন কি?  কিভাবে উপার্জন করা যায়  বিস্তারিত জেনে নিন।

আসসালামু আলাইকুম,

আমার নতুন ব্লগ সাইটে আপনাকে স্বাগতম।
আমরা আমাদের দৈন্দদিন জীবনে টাকা-পয়সার ব্যবহার করে থাকি এবং তা বিভিন্ন ক্ষেএে ব্যবহার করে থাকি। ঠিক তেমনি আমরা হয়তো বিভিন্ন জাগায় বিটকয়েন বা ক্রিপ্টো কারেন্সি নাম শুনেছি তো এটা কি, খাই না মাথায় দেয়,না পিন্দে তা আজ জেনে নেয়।

ক্রিপ্টো কারেন্সি বা বিটকয়েন কিঃ

ক্রিপ্টো কারেন্সি হলো অনলাইন মুদ্রা যার মধ্যে বিটকয়েনও হলো ঐ অনলাইন মুদ্রার অংশ।
বিটকয়েন হলো ওপেন সোর্স ক্রিপ্টোগ্রাফিক প্রোটকলের মাধ্যমে লেনদেন হওয়া সাংকেতিক মুদ্রা।
বিটকয়েন লেনদেন জন্য কোন ধরনের অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান, নিয়ন্ত্রনকারী প্রতিষ্ঠান বা নিকাশ ঘরের প্রয়োজন নেই। এটি সম্পন্ন কম্পিউটার প্রোগাম দ্বারা পরিচালিত হয়।

বিটকয়েনের আবিষ্কারক:

satoshi nakamoto
Dorian Satoshi Nakamoto is shown during an interview at the Associated Press bureau Thursday, March 6, 2014 in Los Angeles. Nakamoto, the man that Newsweek claims is the founder of Bitcoin denies he had anything to do with it and says he had never even heard of the digital currency until his son told him he had been contacted by a reporter three weeks ago. (AP Photo/Damian Dovarganes)

২০০৮ সালে সাতোশি নাকামোতো এই মুদ্রাব্যবস্থার প্রচলন করেন। তিনি এই মুদ্রাব্যবস্থাকে পিয়ার-টু-পিয়ার লেনদেন নামে অভিহিত করেছেন।

বিটকয়েনের বর্তমান দামঃ

বিটকয়েনের দাম

বিটকয়েনের এককঃ

আবিষ্কারক সাতোশি নাকামাতো এর নাম অনুসারে এর একক কে সাতোশি নাম দেওয়া হয়েছে। আমাদের টাকা যেমন পয়সা একক দিয়ে হিসাব করা হয় ঠিক তেমনি বিটকয়েনের একক সাতোশি।
কিন্তু এখানে একটু পরিবর্তন আছে আমাদের যেমন ১০০ পয়সা সমান ১ টাকা তেমনি অনলাইনের মু্দ্রা একটু বিপরীত ভাবে গনন করা হয়। অর্থ্যাৎ ১০ কোটি সাতোশি সমান এক বিটকয়েন।

বিটকয়েন লেনদেন ও ব্যবহারঃ

বিটকয়েন লেনদেন সম্পন্ন বিটকয়েন মাইনার নামক সার্ভার দিয়ে এবং তা সার্ভার কর্তৃক সুরক্ষিত থাকে।যখন পেয়ার টি পেয়ার বিটকয়েন লেনদেন হয় তখন অটোমেটিক আরেকটি বিটকয়েন তৈরী হয়ে যায়। ২১৪০ সাল পর্যন্ত নতুন সৃষ্ট বিটকয়েনগুলো প্রত্যেক চার বছর পরপর অর্ধেক দামে কমে আসবে। ২১৪০ক সালের পর ২১ মিলিয়ন বিটকয়েন তৈরী হয়ে গেলে আর কোন নতুন বিটকয়েন তৈরী করা হবে না।

বিটকয়েনের ব্যবহারঃ

আমরা বাস্তব জীবনে টাকা পয়সা যেভাবে ব্যবহার ঠিক তেমনি অনলাইনে বিভিন্ন জায়গাতে আমরা বিটকয়েন ব্যবহার করতে পারি।
১. বিটকয়েন দিয়ে অনলাইন যে কোন পণ্য কিনতে পারেন যদি ঐ অনলাইন স্টোর টি বিটকয়েন সাপোর্ট করে।
২. অনেক আর্নিং ওয়েবসাইট আছে যারা তাদের পেমেন্ট মেথড হিসাবে বিটকয়েন সিস্টেম টা করে রাখছে।
৩. আপনার যদি বিটকয়েন থাকে তাহলে আপনি অনলাইন থেকে বিটকয়েন দিয়ে রিচার্জ করতে পারবেন।
৪. বিটকয়েন দিয়ে আপনি আপনার ওয়েব সাইটের জন্য ডোমেইন ও হোস্টিং কিনতে পারেন।
৫. বিটকয়েন দ্বারা অনলাইন জগতে অনেক কিছুই করা সব উল্লেখিত বিষয় ছাড়াও।

বিটকয়েনেী অপব্যবহারঃ

১. বিটকয়েন ব্যবহার করে বিভিন ধরনের সাইবার অপরাধ করা হয়।
২. বিভিন্ন অসাধু ব্যক্তি মাদক দ্রব্য, মানব পাচার,খুন,অপহরণ ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করে।
৩. বিভিন্ন হ্যাকার তাদের টুলস গুলো কিনতে বিটকয়েন ব্যবহার করা হয়।
৪. ডার্ক ওয়েবের নাম তো আমরা শুনছি ঐখানে যতসব লেনদেন এর কারাবার বিটকয়েন দিয়েই সম্পন্ন করে।
৫. এছাড়া বিভিন্ন কাজে অসাধু ব্যক্তি গুলো বিটকয়েনের অপব্যবহার করে, এজন্য আমাদের দেশসহ অনেক দেশ বিটকয়েন নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা দিয়েছে।

বিটকয়েন ইনকামঃ

বিটকয়েন ইনকাম করার অনেক ধরেনর ওয়েব সাইট আছে যেখান থেকে আপনি ফ্রি তে বিটকয়েন উপার্জন করতে পারবেন। আনার এই পোস্টে বিটকয়েন আর্নিং উপায় বলতে গিলে অনেক বড় হয়ে যাবে। আপনরা গুগল বা ইউটিউব থেকে শিখে নিতে পারেন।

ক্রিপ্টো কারেন্স বা বিটকয়েন ওয়ালেটঃ

অনেক তো বিটকয়েন নিয়ে পড়লেন কিছু কি ভুলে গিয়েছেন? হ্যাঁ আমার ইনকাম করা বিটকয়েন কোথায় যাবে?
উওর: আমরা যেমন টাজা পয়সা গুলো ব্যাংকে, ম্যানি ব্যাগে, অনলাইন ব্যাগে জমা রাখি। ঠিক তেমনি বিটকয়েন বা অনন্যা মু্দ্রা অর্জন করে জমিয়ে রাখার জন্য অনলাইন বিটকয়েন ওয়ালেট ব্যবহার করা হয়।
সবচেয়ে জনপ্রিয় বিটকয়েন ওয়ালেট হলো Coinbase & Blockchain
এছাড়া অনেক ওয়েব সাইট আছে যেখানে বিটকয়েন জমা রাখতে পারবেন।

আজকের জন্য এতটুকুই পরবর্তী তে অন্য কোন বিষয় নিয়ে আবার কিছু লেখা হবে। আমারর আর্টিকেল টা যদি ভালো লাগে তাহলে প্রতিদিন আমাদের এই নতুন ব্লগ সাইট টি ভিজিট করবেন ও বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।
Note: পোস্টে যতটা জানি ততটা বুঝানের চেষ্টা করেছি এছাড়াও যদি কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে আমাদের সাইটে একটু Account খুলে কমেন্ট করুন আমি উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।

 

MD Biplop Hossain

আমার নাম মোঃ বিপ্লব হোসেন , বর্তমানে আমি কম্পিউটার ডিপার্টেমন্টে ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াশোনা করছি আর নিজের জানা বিষয় গুলো অন্যদের জানাতে শিখাতে ভালো লাগে তাই আমার এই সাইট ।

Add comment

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.